26 C
Dhaka
Saturday, November 26, 2022

অনৈতিক কাজে রিলিজ পাওয়া শিক্ষা অফিসারকে ঈশ্বরদীতে সংবর্ধনা; সমালোচনার ঝড়

ঈশ্বরদী প্রতিনিধিঃ পাবনা জেলা শিক্ষা অফিসারের অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগ এনে এবং একাধিক নারীর লিখিত অভিযোগ প্রমানের ভিত্তিতে স্ট্যান্ড রিলিজ চেয়ে সরকারী একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে পাবনা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম মোসলেম উদ্দিনেরর বিরুদ্ধে। এ নিয়ে সমস্ত জেলা জুড়ে চলছে সমালোচনার ঝড়। সেই বিতর্কিত শিক্ষা অফিসারকে বিদায়ী সংবর্ধনা দিয়ে ঈশ্বরদীর কর্মরত একাংশের শিক্ষকরাও এখন সমালোচনার তুঙ্গে।

এ নিয়ে ঈশ্বরদীর সর্ব মহলে বইছে আলোচনা সমালোচনার ঝড়। নানা প্রকার জঘণ্য ও অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার সত্যতা প্রমানের পরও ঈশ্বরদীর এক শ্রেনীর শিক্ষকরা তাকে সংবর্ধিত করে ভবিষৎতে এ ধরনের কাজ আরও সম্পাদন করার কাজে অভিযুক্ত শিক্ষককে উৎসাহ দিয়েছে বলে মন্তব্য চলছে বিভিন্ন মহলে।
অনৈতিক কাজে রিলিজ পাওয়া শিক্ষা অফিসারকে ঈশ্বরদীতে সংবর্ধনা; সমালোচনার ঝড়

উল্লেখ্য, গত (সোমবার) ২৫ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর শাহেদুল খবির চৌধুরী স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়েছে,অনৈতিক কাজে যুক্ত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় পাবনা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম মোসলেম উদ্দিনকে তাৎক্ষণিক কর্মস্থল ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কর্মস্থল ত্যাগ করে তাকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) হিসেবে বদলি করা হয়েছে।
অনৈতিক কাজে রিলিজ পাওয়া শিক্ষা অফিসারকে ঈশ্বরদীতে সংবর্ধনা; সমালোচনার ঝড়

এতে বলা হয়েছে,মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরাধীন বিদ্যালয় ও পরিদর্শন শাখায় কর্মরত এ (পাবনা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম মোসলেম উদ্দিন) কর্মকর্তাকে বর্ণিত পদ ও কর্মস্থলে নিজ বেতন স্কেল ও বেতনক্রমে বদলিভিত্তিক পদায়ন করা হলো। তিনি তাৎক্ষণিকভাবে বিমুক্ত বলে গণ্য হবেন।

এমন পরিস্থিতিতে অভিযুক্ত জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম মোসলেম উদ্দিন যখন সমালোচনার খোরাক যোগাচ্ছে সচেতন মহলে ঠিক তখনই ঈশ্বরদীর শিক্ষকদের একাংশ গত ২৮ জুলাই (বৃহস্পতিবার) ঈশ্বরদীস্থ বনলতা রেস্টুরেন্টে তাকে তার বিদায়োত্তর সংবর্ধনা দিয়ে সেই সমালোচিত শিক্ষকের সাথে নিজেদেরকেও সমালোচনার খোরাকে পরিনত করেছে বলে মন্তব্য করছেন সচেতন মহল।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

লেখক থেকে আরো