আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু করেছে আমেরিকা

আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শুরু হয়েছে। আমেরিকার কয়েকজন সামরিক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আফগানিস্তানে মার্কিন আগ্রাসনের প্রায় ২০ বছর পর সেখান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নিচ্ছে আমেরিকা।

গতকাল (বৃহস্পতিবার) মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন জানিয়েছেন, অস্ত্রসহ কয়েক ডজন সেনাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন মে মাস শুরুর আগেই আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু করবেন বলে কিছুদিন আগে ঘোষণা দিয়েছিলেন। তার অংশ হিসেবে এসব সেনা প্রত্যাহার করা হলো।

আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু করেছে আমেরিকা

মার্কিন নিউজ নেটওয়ার্ককে দেশটির সেনা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বেসরকারি নিরাপত্তা ঠিকাদার ও মার্কিন সরকারি কর্মীরাও আফগানিস্তান ছাড়তে শুরু করেছে।

গত সপ্তাহে সিএনএন জানিয়েছিল, সামরিক সরঞ্জামাদি আফগানিস্তানের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাম্প্রতিক ঘোষণা অনুযায়ী, আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার সম্পন্ন হবে।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর আমেরিকার নিউ ইয়র্ক শহরের টুইন টাওয়ারে কথিত সন্ত্রাসী হামলার অজুহাত তুলে অক্টোবর মাসে সন্ত্রাস-বিরোধী যুদ্ধের নামে আমেরিকা ও ব্রিটেন আফগানিস্তানে সামরিক আগ্রাসন শুরু করে। তালেবানকে উৎখাতের লক্ষ্য নিয়ে আগ্রাসন শুরু করলেও আজ পর্যন্ত তা সম্ভব হয় নি বরং তালেবানের শক্তি মেনে নিয়ে তাদের সঙ্গে শান্তি চুক্তি করে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে হচ্ছে।

সুত্রঃপার্সটুডে।

পূর্ববর্তী খবরমোংলায় বিশুদ্ধ পানির জন্য হাহাকার জনসাধারণের।
পরবর্তী খবরআসছে মাসেই ৫৪ হাজার শিক্ষক নিয়োগ সুপারিশ : চেয়ারম্যান

Leave a Reply