ইংল্যান্ড আইপিএল খেলতে ক্রিকেটারদের ছাড়পত্র দেবে না

করোনায় মাঝপথে বন্ধ হয়ে গেছে আইপিএল। নিকট ভবিষ্যতে টুর্নামেন্টের বাকি অংশ ভারতে আয়োজন সম্ভব নয়। বেশ কয়েকটি দেশ আইপিএল আয়োজন করতে চাইলেও বিসিসিআই তাতে আগ্রহী নয়। কারণ, এতে তাদের আর্থিক লাভ কম। তাই সৌরভ গাঙ্গুলীর বোর্ড চায়, অক্টোবরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগমুহূর্তে ফাঁকা সময়ে আইপিএলের বাকি অংশ শেষ করতে।

কিন্তু ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড জানিয়ে দিয়েছে, ওই সময় তারা তাদের ক্রিকেটারদের আইপিএলের ছাড়পত্র দেবে না।টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগের সময়টুকুতে ইংল্যান্ডের অ্যাওয়ে সিরিজ আছে। বাংলাদেশ ও পাকিস্তানে দুটি সিরিজ খেলবে তারা। তাই ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অ্যাশলি জাইলস বলেছেন, ওই সময়ে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ছাড়া হবে না। তার ভাষায়, ‘যদি পরিকল্পনা অনুযায়ী সফর হয়, খেলোয়াড়েরা সেখানে যাবে বলেই আমি আশা করি। ইংল্যান্ডের ম্যাচে সব শীর্ষ ক্রিকেটার থাকবে, এটাই তো আমাদের পরিকল্পনা।’

২ জুন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শুরু হবে ইংল্যান্ডের। কোয়ারেন্টিনের কারণে ওই সিরিজে আইপিএল ফেরত কারও খেলার সম্ভাবনা নেই। এ বিষয়ে জাইলস বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের সিরিজের পরিস্থিতি ভিন্ন। এই সিরিজের ম্যাচের সূচি ঠিক হয়েছে জানুয়ারির শেষে। তত দিনে আইপিএলে সময় দেওয়ার ব্যাপারে খেলোয়াড়েরা চুক্তি করে ফেলেছিল। সামনে অনেক ম্যাচ আছে। তবে তাদেরকে আমরা তাড়াহুড়া করে বা জোর করে ক্রিকেটে ফেরাব না। প্রধান কোচ এদের সবার সঙ্গে আলাদাভাবে কাজ করবে।’

পূর্ববর্তী খবরবুধবার সরকারি অফিস খোলা থাকবে
পরবর্তী খবরঅনলাইনে ক্লাসে দেশ সেরা জাবি, সেরা দশে কুবি

Leave a Reply