উলিপুরে ১৩টি ইউপি’র নির্বাচনে আ’ লীগের মনোনয়ন রেজুলেশন নিয়ে প্রতারনা! 

চতুর্থ ধাপে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২০২১ কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলায় ১৩ ইউনিয়নে আ লীগের প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম হোসেন মন্টুর বিরুদ্ধে। 

অভিযোগের সত্যতা খুজতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম হোসেন মন্টুর নিজ ইউনিয়নে গেলে জানা যায়, তার পুত্র নাজমুল হুদা রুবেলকে নৌকা মার্কার একক প্রার্থী বানাতে গোলাম হোসেন মন্টু তার পরিবারের আরও দুজনের নাম রেজুলেশনের মাধ্যমে কেন্দ্রে প্রেরন করেন। যার প্রেক্ষিতে ধরনীবাড়ী ইউনিয়ন আ’ লীগের নেতা-কর্মিদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হয়।

ইউনিয়নের সাধারণ ভোটাররা জানান জনপ্রিয় প্রার্থী এরশাদুলহক (অবসরপ্রাপ্ত আর্মি) কে নৌকা মার্কা দিলে এই ইউনিয়নে জয় সুনিশ্চিত।

গুনাইগাছ ইউনিয়নে ভিজিএফ এর চাউল চুরি কেলেংকারির মুল হোতা মোখলেছুর রহমানের নাম রেজুলেশনের মাধ্যমে কেন্দ্রে পাঠান উক্ত ইউনিয়ন আ’ লীগ সভাপতি / সম্পাদকের সই জাল করে উপজেলা আওয়ামী লীগ। কথিত আছে, মোটা অংকের আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে এটি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সুপ্রিমকোর্টের আপিল ডিভিশনে জাস্টিস আঃ ওহাব মিয়া, জাস্টিস মির্জা হোসেন হায়দারের বেঞ্চ ২৯/০৯/২০১৮ ইং তারিখে সাবেক চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমানকে চাউল চুরির অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় তিন বছরের সাজা এবং নগত জরিমানা ৮৮,৫৩৫ টাকা ধার্য করেন। 

এ ব্যাপারে উলিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ্ব কবির উদ্দিনকে যোগাযোগ করলে, তিনি কিছু জানেন না, সাধারন সম্পাদক সবকিছু জানেন বলে প্রতিবেদক কে জানান।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম হোসেন মন্টুর জানতে চাইলে, তিনি গুনাইগাছ ইউনিয়ন সমন্ধে জানান যে অভিযোগ সত্য তবে সাজাপ্রাপ্ত আসামীর ভোট করার আইনি অধিকার না থাকলে নির্বাচন কমিশন তাকে অযোগ্য ঘোষনা করবেন।

আর ধরনীবাড়ি ইউনিয়ন স্বমন্ধে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, এরশাদুল হক (অবসরপ্রাপ্ত) আর্মি অর্থের বিনিময়ে দলে প্রবেশ করে ইউনিয়নে প্রভাব বিস্তার করেছেন বিধায় তার নামটি কেন্দ্রে পাঠানো হয়নি।

বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের আ’ লীগ সভাপতি অভিযোগ করে বলেন, আমার স্বাক্ষর না নিয়ে অত্র ইউনিয়ন কমিটির রেজুলেশন ঢাকায় প্রেরণ করেন উপজেলা সাধারন সম্পাদক।

১৩ ইউনিয়ন বর্ধিতসভার রেজুলেশনে ব্যাপক রদবদলের ব্যাপারে কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলী বলেন, আমি উপজেলা আওয়ামী লীগের কাছে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তারা আমাকে কোন সদুত্তর না দিয়ে সব রেজুলেশনসহ সাধারণ সম্পাদক বিমানযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

পূর্ববর্তী খবরঈশ্বরদীতে ভোরের চেতনা পত্রিকার ২৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন
পরবর্তী খবর৪র্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে আ’ লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভা বুধবার!

Leave a Reply