এরশাদকে স্বৈরাচারী বলা যাবে না!

Photo collection: - সংগৃহীত

অনলাইন ডেস্ক:- হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে গায়ের জোরে স্বৈরাচারী বলা হয় বলে দাবি করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। তিনি বলেন, আদালত এরশাদকে বৈধ রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। তিনি বৈধ রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবেই ক্ষমতা হস্থান্তর করেছেন। তাই কোনোভাবেই এরশাদকে স্বৈরাচারী বলা যাবে না। গত রোববার রাজধানীর বনানীতে দলের চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে ‘সংবিধান সংরক্ষণ দিবস’ পালন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, এরশাদ ছিলেন প্রকৃত গণতন্ত্রমনা রাষ্ট্রনায়ক। তার সামনে ক্ষমতা হস্থান্তর না করার সুযোগ ছিল। কিন্তু তিনি গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা রক্ষায় সংবিধানকে সমুন্নত রেখেই ক্ষমতা হস্থান্তর করেন।

জাপা চেয়ারম্যান অভিযোগ করেন, সংবিধানে ৭০ ধারা সংসদীয় গণতন্ত্রের মূল স্বাদ ধংস করেছে। ৭০ ধারার কারণে সংসদ সদস্যরা দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে ভোট দিতে পারেন না। তাতে সরকার প্রধান যা করতে চান তার বাইরে কিছুই করা সম্ভব হয় না। তাই ৭০ ধারার কারণে সরকারে একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয়, যা স্বৈরতন্ত্রের পর্যায়ে পড়ে।

জিএম কাদের আরো বলেন, সংসদীয় পদ্ধতির প্রকৃত স্বাদ রক্ষা করতে ৭০ ধারা বিলুপ্ত করতে হবে। সেটা না হলে অন্য কিছু ভাবতে হবে সরকার পদ্ধতি নিয়ে। ৭০ ধারা বিদ্যমান থাকায় নির্যাতন ও দুর্নীতি বেড়ে যায়। সুশাসনের অভাব হয় এবং আইনের শাসন কার্যকর করা যায় না। আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আব্দুস সবুর আসুদ, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি প্রমূখ।

পূর্ববর্তী খবরপাবনায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ!
পরবর্তী খবরপাবনার ভাঙ্গুড়া টিভি দেখতে না দেওয়ায় সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর আত্মহত্যা!

Leave a Reply