কথাসাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ ভারতের কলকাতায় মারা গেছেন

বুদ্ধদেব গুহ (১৯৩৬-২০২১)

বাংলা ভাষার সুপরিচিত একজন কথাসাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ ভারতের কলকাতায় মারা গেছেন।

বুদ্ধদেব গুহ ‘মাধুকরী’-সহ বেশ কিছু পাঠকপ্রিয় উপন্যাসের লেখক।

তিনি কোভিড-১৯ পরবর্তী জটিলতা নিয়ে কলকাতা শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

তাঁর পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে ভারতের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআই বলছে, রবিবার মধ্যরাতের কিছু আগে একটি বড় ধরণের ‘কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট’ হওয়ার পর তাঁর মৃত্যু হয়।

গত এপ্রিল মাসে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন মি. গুহ এবং সে সময় টানা তেত্রিশ দিন হাসপাতালে থাকতে হয়েছিল তাঁকে।

মৃত্যুকালে তিনি দুই কন্যা রেখে গেছেন। তাঁর স্ত্রী রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী ঋতু গুহ ২০১১ সালে মারা যান।

১৯৩৬ সালের ২৯শে জুন কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন মি. গুহ। তাঁর শৈশব কেটেছে বাংলাদেশের বরিশাল ও রংপুরে।

তাঁর শৈশবের নানা অভিজ্ঞতা পরবর্তীতে তাঁর লেখালেখিতে উঠে আসে। তাঁর লেখা উপন্যাস ও ছোটগল্পগুলো ব্যাপক পাঠকপ্রিয়তা পেয়েছে।

তিনি আনন্দ পুরস্কার-সহ নানা পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।

মাধুকরী ছাড়াও তার পাঠকপ্রিয় উপন্যাসের মধ্যে রয়েছে ‘কোয়েলের কাছে’ ও ‘সবিনয় নিবেদন’।

তাঁর দুটো রচনা ‘বাবা হওয়া’ এবং ‘স্বামী হওয়া’-র ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে পুরস্কারজয়ী বাংলা চলচ্চিত্র ‘ডিকশনারি’।

শিশু সাহিত্যিক হিসেবেও তাঁর জনপ্রিয়তা ছিল – তাঁর তৈরি জনপ্রিয় কাল্পনিক চরিত্র ঋজু’দা এবং তার সহযোগী রুদ্র।

বুদ্ধদেব গুহ পেশায় ছিলেন চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট। এছাড়া ধ্রুপদী সঙ্গীত ও ছবি আঁকায় দক্ষতা ছিল তার।

খবর বিবিসির

পূর্ববর্তী খবরউন্নয়ন প্রকল্পে কাজের মান নিশ্চিত করতে হবে: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
পরবর্তী খবরক্যাম্পাস উত্তপ্ত করতে ষড়যন্ত্রের জাল বোনা হচ্ছে: কাদের

Leave a Reply