কারাগারে নিহত ইসরাইলি গোয়েন্দা কর্মকর্তা বড় ধরনের গোপন তথ্য ফাঁস করতে চেয়েছিলেন

ইহুদিবাদী ইসরাইলের সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল আভিভ কোচাভি

ইহুদিবাদী ইসরাইলের সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল আভিভ কোচাভি বলেছেন, গত মাসে একটি সামরিক কারাগারে রহস্যজনকভাবে যে গোয়েন্দা কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন তিনি বড় ধরনের রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য ফাঁস করে দিতে চেয়েছিলেন। তবে শেষ মুহূর্তে ঐ গোপন তথ্য ফাঁস করা ঠেকানো হয়েছে।

জেনারেল কোচাভি তার ভাষায় বলেন, “আমরা তার দেখাশুনা করতে চেয়েছিলাম। আমরা তার পরিবারও দেখাশুনা করতে চেয়েছিলাম। একই সময়ে আমরা অনেক বড় গোপন তথ্য রক্ষা করতে চেয়েছিলাম যা প্রায় তিনি শেষ করে দিয়েছিলেন।”

গতকাল বুধবার এসব কথা বলেছেন ইসরাইলি সেনাপ্রধান জেনারেল আভিব কোচাভি।

ইসরাইলের সামরিক কারাগারে নিহত ওই গোয়েন্দা কর্মকর্তাকে গত সেপ্টেম্বর মাসে আটক করা হয় এবং তাকে গোপন তথ্য ফাঁসের চেষ্টার জন্য অভিযুক্ত করা হয়।

নিহত ইসরাইলি গোয়েন্দা কর্মকর্তা সম্পর্কে জেনারেল কোচাভি বলেন, “তিনি একজন অত্যন্ত দক্ষ ও চমৎকার কর্মকর্তা ছিলেন কিন্তু তিনি শেষ পর্যায়ে এসে জেনেশুনে বড় ধরনের অপরাধ করে ফেলেছেন। তিনি জানতেন তিনি কি করছেন, কিন্তু আমি বুঝতে পারলাম না কেন তিনি তা করতে গেলেন।”

গত ১৬ মে ইসরাইলের সামরিক কারাগারে ওই গোয়েন্দা কর্মকর্তাকে মারাত্মক অবস্থায় পাওয়া যায়। এর কয়েক ঘণ্টা পর ইসরাইলের সামরিক বাহিনী তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। তার মৃত্যুর খবর যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য ইহুদিবাদী সেনারাদের পক্ষ থেকে কড়া সেন্সরশিপ আরোপ করা হয়। ইসরাইলি বাহিনীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়- সরকার এবং সামরিক বাহিনীর প্রাইভেসি রক্ষার জন্য এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

সুত্রঃ পার্সটুডে।

পূর্ববর্তী খবর২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত
পরবর্তী খবরলক্ষ্মীপাশায় টেলিকমের দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি

Leave a Reply