গবেষণা অব্যাহত রাখতে টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের ফান্ডিং পেল যবিপ্রবির অ্যাস্ট্রোনমি ক্লাব

যবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ মহাকাশ পর্যবেক্ষণ, গবেষণা এবং শিক্ষার্থীদেরকে জ্যোতির্বিজ্ঞানে আগ্রহী করতে কানাডার টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে টেলিস্কোপ কেনার ফান্ডিং এর জন্য নির্বাচিত হয়েছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জামাল নজরুল ইসলাম অ্যাস্ট্রোনমি ক্লাব। 

৩ নভেম্বর রোজ বুধবার ইউনিভার্সিটি অব টরেন্টো এর ডানল্যাপ ইনস্টিটিউট ফর অ্যাস্ট্রোনমি এন্ড অ্যাস্ট্রোফিজিক্স এর পোস্ট ডক্টোরাল ফেলো ড. লামিয়া মওলা এক ক্ষুদে বার্তায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, ক্লাবকে রিসার্চ বেজড এবং মহাকাশকে প্রগাড় পর্যলোচনার লক্ষ্যে ক্লাব কর্তৃপক্ষ সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে  বাংলাদেশী অ্যাস্ট্রোফিজিসিস্ট ড. লামিয়া মওলার সাথে যোগাযোগ করেন। ক্লাবের কার্যক্রম কে বেগবান করতে ও রিসার্চ বেজড লার্নিং সিস্টেম চালু করার অভিপ্রায় থেকে ড. লামিয়া মওলার একান্ত প্রচেষ্টায় ক্লাবটি টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে  টেলিস্কোপ কেনার ফান্ডিং এর জন্য নির্বাচিত হয়। 

এ বিষয়ে ক্লাবের উপদেষ্টা ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আলমগীর বাদশা বলেন, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় আমাদের ক্লাবটি আজ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভ করেছে। এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের সংবাদ। আমি ক্লাবের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি। 

জ্যোতির্বিজ্ঞানকে জানতে এবং জ্যোতির্বিজ্ঞানকে জানার আগ্রহ প্রগাঢ় করার পাশাপাশি বিভিন্ন কর্মশালার আয়োজন করতে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের স্বপ্নবাজ দুজন তরুণ শিক্ষার্থী আলী মোর্তুজা এবং মাহবুবুর রহমানের যৌথ উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের চার জন শিক্ষক ড. আলমগীর বাদশা, মোঃ ফারুক হোসেন, রনি মল্লিক  এবং বোরহানুল আশফিয়াকে উপদেষ্টা করে ৪ঠা সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে  জামাল নজরুল ইসলাম অ্যাস্ট্রোনমি ক্লাব গঠন করা হয়।

এক বছরের এ পথচালনায় ক্লাবটি ইতোমধ্যে  ৩০ টি আন্তর্জাতিক ওয়েবিনার আয়োজন করেছে। আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারগুলোতে নাসা , সার্ন সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডীন এবং প্রফেসরবৃন্দ লাইভ সেশন করেছেন। পাশাপাশি ক্লাবটি মাতৃভাষায় জ্যোতির্বিজ্ঞানের জ্ঞানকে ছড়িয়ে দিতে প্রকাশ করেছে ৪ টি দ্বিমাসিক ম্যাগাজিন।ওয়েবিনার এবং ম্যাগাজিনের পাশাপাশি ক্লাবটি আমেরিকান ফিজিক্যাল সোসাইটি, ফ্রন্টিয়ার অব ফিজিসিস্ট, ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি অব মুসলিম উইমিন ইন সাইন্স এর মতো সনামধন্য প্রতিষ্ঠানের সাথে তাদের কার্যক্রমকে সম্প্রসারিত করেছে। এছাড়া মাতৃভাষায় অ্যাস্ট্রোনমিকে সহজবোধ্য করার লক্ষ্যে ড. লামিয়া মওলা বাংলা ভাষায় ফ্রি অনলাইন অ্যাস্ট্রোনমি কোর্স চালু করার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

ক্লাবের সভাপতি আল মুজাহিদ আফ্রিদি বলেন , মহাকাশকে জানা এবং পর্যালোচনায় টেলিস্কোপের বিকল্প নাই,এছাড়া বাংলাদেশের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ে টেলিস্কোপ না থাকায় অধিকাংশ শিক্ষার্থী মহাকাশকে জানার আগ্রহ হারিয়ে ফেলে।সুতরাং এক্ষেত্রে আমাদের টেলিস্কোপে ল্যাব বেজড কাজ করার সুযোগ থাকায় গ্রাউন্ড বেজড থেকে মোটামুটি উচ্চতর লেভেল পর্যন্ত কাজ করার সুযোগ আমরা পাচ্ছি, যেটা আমাদের সেমিস্টার কোর্সেও বেশ ইফেক্টিভ হবে । ড. লামিয়া মওলা ম্যামের নিরন্তন প্রচেষ্টায় আমাদের আরো একধাপ এগিয়ে চলা সুপ্রসন্ন হওয়ায় ম্যামকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

পূর্ববর্তী খবরপঞ্চম ধাপে ইউপি নির্বাচনের তফসিল সোমবার
পরবর্তী খবরহাফ পাশ নিয়ে জবি শিক্ষার্থীকে লাঞ্ছনা; বাস ভাংচুর-সড়ক অবরোধ

Leave a Reply