গিনিতে সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখলের দাবি

গিনির প্রেসিডেন্ট আলফা কোন্ডের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। এক ভিডিওতে প্রেসিডেন্টকে ঘিরে রাখতে দেখা গেছে সেনা সদস্যদের। তাদের দাবি, ক্ষমতা এখন তাদের হাতে। দেশটির জাতীয় টেলিভিশনে সেনা সদস্যরা এ দাবি জানায়। খবর বিবিসির।

যদিও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ক্ষমতা দখলের চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়েছে প্রেসিডেন্সিয়াল গার্ড। এদিকে, দেশটির রাজধানী কোনাক্রিতে ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। সহিংস ঘটনায় তিনজন সেনা সদস্য নিহত হওয়ারও খবর পাওয়া গেছে।

টেলিভিশিনে দেখা গেছে, নয়জন সেনা সদস্য প্রেসিডেন্টকে ঘিরে রেখেছেন। তারা সবাই লাল ও সবুজ রঙের পতাকা গায়ে জড়িয়েছিলেন। ক্ষমতা কেড়ে নেওয়ার পেছনে সরকারের ভয়াবহ দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা ও দারিদ্র্যতার কথা বলেন সেনারা। এসময় তারা জাতীয় পুনর্মিলন ও উন্নয়ন কমিটির সদস্য বলেও দাবি করেন।

এসময় আরও বলা হয়, সংবিধান স্থগিত করা হয়েছে এবং আলোচনা চলবে। এ অভ্যুত্থানচেষ্টার পেছনে রয়েছেন সেনাবাহিনীর অভিজাত একটি ইউনিট। যার প্রধান হচ্ছেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল মামাদি দৌমবৌয়া।

এদিকে, ক্ষমতা সেনা নিয়ন্ত্রণে যাওয়ার খবরে বিরোধীরা রাস্তায় নেমে আনন্দ মিছিলও করেন বলে জানা গেছে।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস ও আফ্রিকান ইউনিয়নের নেতারা ঘটনার নিন্দা জানিয়ে প্রেসিডেন্ট আলফা কোন্ডেকে দ্রুত মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গিনি প্রাকৃতিক সম্পদের দিক দিয়ে ধনী হলেও কয়েক বছর ধরে রাজনৈতিক অস্থিরতা ও অব্যবস্থাপনা দেশটিকে গরীবদের কাতারে নিয়ে গেছে।

পূর্ববর্তী খবরপ্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী পেতে যাচ্ছে জাপান
পরবর্তী খবরবিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে

Leave a Reply