17 C
Dhaka
Sunday, February 5, 2023

গৌরীপুরে স্থগিত ২ কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ চলছে

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার সিধলা ইউনিয়নের স্থগিত দুই কেন্দ্রে  ভোটগ্রহণ চলছে।

সোমবার সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়; একটানা চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

বলারকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে প্রিসাইটিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করছেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার কমল রায়। তিনি জানান, এখন পর্যন্ত সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। অপরদিকে গোয়ালাকান্দা এবতেদায়ি মাদ্রাসায় প্রিসাইটিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করছেন বড়ভাগ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হুমায়ুন কবীর খান।

বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুব্রত ঘোষ শুভ, দুই কেন্দ্রের জন্য ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মো. আব্দুল মোতালিব চৌধুরীর নেতৃত্বে স্ট্রাকিং ফোর্স, দুটি কেন্দ্রে দুটি মোবাইল কোর্ট ও কেন্দ্র নিরাপত্তার দায়িত্বে সার্বক্ষণিক পুলিশের বিশেষ টিম দায়িত্ব পালন করছেন।

বলারকান্দা গ্রামের আফাজ উদ্দিন (৬০) বলেন, সংঘর্ষের কারণে আগে ভোটগ্রহণ স্থগিত হলেও এবার কোনো শঙ্কা নেই।

রিটার্নিং কর্মকর্তা উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা নন্দন কুমার দেবনাথ জানান, পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিশৃঙ্খলার জন্য এ ইউনিয়নের স্থগিত বলারকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও গোহালাকান্দা এবতেদায়ি মাদ্রাসার ভোটগ্রহণ বাতিল করা হয়। বলারকান্দা কেন্দ্রে ২৮৬০ জন এবং গোয়ালাকান্দা কেন্দ্রে ২০৯৮ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

৯টি কেন্দ্রের মধ্যে সাত কেন্দ্রের ফলে প্রথম স্থানে রয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের মো. একদিন হোসেন তালুকদার ২৯২২ ভোট, দ্বিতীয় অবস্থানে আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা প্রতীকের শেখ শ্যামছ উদ্দিন ২৭২৩ ভোট এবং তৃতীয় স্থানে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. জয়নাল আবেদিন পেয়েছেন ২৬১০ ভোট ।

রিটার্নিং অফিসার জানান, এ দুটি ভোটকেন্দ্রে চেয়ারম্যান, ২নং ও ৩নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত সদস্য এবং ৬নং ও ৭নং ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্যপদে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ হয়।

এ ইউনিয়নে ১১ চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তারা হলেন— আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ও দলের ইউনিয়ন সভাপতি মো. জয়নাল আবেদীন (নৌকা), শেখ শামছ উদ্দিন (চশমা), আওয়ামী লীগ নেতা মো. কামরুজ্জামান (মোটরসাইকেল), একদিল হোসেন তালুকদারের (আনারস), মো. নজরুল ইসলাম (অটোরিকশা), মো. শফিকুল ইসলাম (টেবিল ফ্যান), আবু হানিফ (ঘোড়া), মো. আব্দুস সালাম (লাঙ্গল), মো. আতাউর রহমান (হাতপাখা), মো. ইকবাল হোসেন তালুকদার (ঢোল) ও মো. শাহজাহান কবীর (সিংহ)।

সংরক্ষিত সদস্য আসন ২নং ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তিনজন। তারা হলেন— আলেয়া খাতুন (তালগাছ), নাসরিন (মাইক) ও মাজেদা খাতুন (হেলিকপ্টার)।

সংরক্ষিত ৩নং ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ছয়জন। তারা হলেন— নার্গিস বেগম (মাইক), কোহিনুর বেগম (সূর্যমুখী ফুল), জ্যোৎস্না আক্তার (হেলিকপ্টার), নাজমা আক্তার (তালগাছ), রেহেনা বেগম (বই) ও হোসনে আরা (কলম)।

সাধারণ সদস্য আসন ৬নং ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন চার প্রার্থী। তারা হলেন—  আব্দুল কাদির (তালা), কামাল উদ্দিন (টিউবওয়েল), রফিকুল ইসলাম (মোরগ) ও সাইদুল ইসলাম (ফুটবল)।

সাধারণ সদস্য আসন ৭নং ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আট প্রার্থী। তারা হলেন— আব্দুল করিম (তালা), আব্দুল সোবহান (ফুটবল), আবুল হাসিম (আপেল), খোরশেদ (ঘুড়ি), মোবারক হোসেন (বৈদ্যুতিক পাখা), রাহ হোসেন (ভ্যানগাড়ি), রুহুল আমিন নজরুল (টিউবওয়েল) ও মো. লোকমান (মোরগ)।

উল্লেখ্, ২০২১ সালের ২৬ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণের দিন হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনায় দুটি ভোটকেন্দ্রের নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছিল।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

লেখক থেকে আরো