30 C
Dhaka
Saturday, November 26, 2022

পূর্ব দ্বন্দ্বের জেরে,

জবি রোভারের সাবেক সভাপতি কে মারধর!

নাজমুল হোসেন, জবি প্রতিনিধি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) রোভার ইন কাউন্সিলের সাবেক সভাপতি আহসান হাবিবকে মারধর করেছে ২০২০-২১ এর সভাপতি প্রার্থী নাজমুল মুন্না। আহত আহসান হাবিবকে গুরুতর অবস্থায় রাজধানীর সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার (২৪ জুন) সন্ধ্যায়  বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে এই ঘটনা ঘটে। 

জানা গেছে, শুক্রবার রোভার ইন কাউন্সিলের নির্বাচন শেষে ডেন থেকে বের হন কাউন্সিলের সাবেক সভাপতি আহসান হাবিব। ডেন থেকে বের হয়ে ক্যাম্পাসের মূল ফটকে আসলে নাজমুল হাসান মুন্নার নেতৃত্বে আরো অন্যান্য সহযোগীরা অতর্কিত হামলা করে।

এ বিষয়ে আহসান হাবিব জানান, জবি রোভারের আমরা সাবেক যারা ছিলাম তারা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রোভারের বার্ষিক সভায় এসেছিলাম। নাজমুল মুন্না ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী আমি ২০১৯-২০ এ রোভারের সভাপতি ছিলাম। মুন্না ২০২০-২১ এ সভাপতি প্রার্থী ছিল সে নির্বাচনে হেরে গিয়ে তখন থেকেই আমার প্রতি ক্ষোভ পুষে রাখে। আজ যখন ক্যাম্পাসে আসি জুম্মার নামাজের পর মুন্না আমায় ধমক দিয়ে বলে আমি যেন ক্যাম্পাস থেকে চলে যাই তখন আমার ছোট ভাই যারা ছিল সবাই আমাকে রোভারের রুমে  নিয়ে আসে। নির্বাচন শেষে যখন আমি বের হচ্ছিলাম তারা মেইন গেটে আগেই ওতপেতে ছিল হঠাৎ করেই আমার উপর হামলা চালায় আমার মাথায় ঘাড়ে আঘাত পাই। অনেক রাত হয়ে যাওয়ায় প্রক্টর অফিসে শুধু মৌখিক অভিযোগ দিয়ে আসি।আগামীকাল লিখিত অভিযোগ দিব।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সন্ধ্যার একটু আগে আহসান হাবিব বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে আসলে ছাত্রলীগ কর্মীরা তার ওপর অতর্কিত হামলা করে। হামলার সময় একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের শিক্ষার্থী মুন্না, ঈসাসহ ৮-১০ জন অংশ নেয়। এ সময় তারা লোহার হাতল দিয়ে আহসান হাবিবকে আঘাত করে। ঘটনার সময় রোভার স্কাউটের সদস্যরা ঠেকাতে আসলে তাদেরকে বাঁধা দেয়। 

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহিম ফরাজি বলেন, আমি ব্যাপারে কিছু জানি না। কাকে মারছে, কারা মারছে। একটু আগেও প্রক্টরের সাথে কথা বলেছি, উনিও কিছু বলেনি। আমি খোঁজ নিচ্ছি। 

রোভার স্কাউট গ্রুপের সম্পাদক অধ্যাপক ড. মনিরুজ্জামান খন্দকার বলেন, বিষয়টি আমরা ইতিমধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি। তারা এই বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নিবেন। তবে এই ধরনের ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত। এতে করে সার্বিক সংগঠন ও কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়। 

এ বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমি জেনেছি৷ আগামীকাল লিখিত অভিযোগ দিবে। তারপর পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

এদিকে রোভার স্কাউটের সদস্যরা ঘটনার বিচার না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের কার্যক্রম থেকে নিজেদের বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

লেখক থেকে আরো