তুর্কি সেনাদের ওপর হামলার হুমকি দিলেন খলিফা হাফতার

লিবিয়ায় মোতায়েন তুর্কি সামরিক বাহিনীর ওপর হামলার হুমকি দিয়েছেন বিদ্রোহী নেতা জেনারেল খলিফা হাফতার। জাতিসংঘ স্বীকৃত লিবিয়ার সরকারকে সমর্থন দেয়ার জন্য দেশটিতে সেনা মোতায়েন করে রেখেছে তুরস্ক। এর বিপরীতে ফ্রান্স, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং মিশরের মতো দেশ খলিফা হাফতারকে সমর্থন দিচ্ছে।

জেনারেল হাফতার তুরস্ককে উপনিবেশবাদী শত্রু হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, লিবিয়া থেকে শান্তিপূর্ণভাবে তুরস্কের সেনাদের চলে যেতে হবে, অন্যথায় তাদেরকে জোর করে বের করে দেয়া হবে।

সম্প্রতি তুরস্কের সংসদ লিবিয়ায় সেনা সংখ্যা বাড়ানোর জন্য একটি প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। প্রস্তাব অনুসারে আরো ১৮ মাসের জন্য তুরস্ক লিবিয়ায় সেনা মোতায়েন করে রাখবে।

এ প্রসঙ্গে হাফতার বলেন, লিবিয়া থেকে যতক্ষণ পর্যন্ত না তুরস্কের সেনারা চলে যাবে ততক্ষণ পর্যন্ত প্রিয় জন্মভূমিতে শান্তি ও নিরাপত্তা ফিরে আসবে না। চলতি বছরের প্রথম দিকে তুর্কি সেনাদের বিরুদ্ধে হাতে অস্ত্র তুলে নিতে লিবিয়ার নারী-পুরুষ সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন হাফতার।

২০১১ সালে কথিত আরব-বসন্তের সময় মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো সামরিক জোট লিবিয়ার সাবেক নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফিকে হত্যা করার পর দেশটিতে মারাত্মক বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। এরপর ত্রিপোলিভিত্তিক লিবিয়ার আন্তর্জাতিক স্বীকৃত সরকার এবং বিদ্রোহীদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয় যা চূড়ান্তভাবে গৃহযুদ্ধে রূপ নিয়েছে।#

পার্সটুডে/এসআইবি/২৫

পূর্ববর্তী খবরক্ষমতার শেষ মুহূর্তে সৌদির কাছে স্মার্ট বোমা বিক্রিতে ট্রাম্পের তাড়াহুড়ো
পরবর্তী খবরপ্রাইভেট কারসহ ১০০ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ।

Leave a Reply