নওগাঁয় প্রেমের ফাঁদে ফেলে মুক্তিপণ আদায়কারী চক্রের আরও একটি গ্যাং গ্রেফতার।

নওগাঁয় প্রেমের ফাঁদে ফেলে মুক্তিপণ আদায়কারী চক্রের আরও একটি গ্যাং গ্রেফতার।


নাদিম আহমেদ অনিক, নওগাঁ প্রতিনিধি- নওগাঁয় প্রেমের ফাঁদে ফেলে আটকে রেখে মুক্তিপণ আদায় কারী আরো একটি গ্যাং কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
নওগাঁর বদলগাছীতে প্রেমের ফাঁদে ফেলে অপহরণ পূর্বক মুক্তিপণ দাবী ও হত্যা চক্রের ৪সদস্য বিশিষ্ট একটি গ্যাং গ্রেপ্তার করে গত ১৯নভেম্বর আদালতে প্রেরণের মাত্র কিছুদিনের ব্যবধানে আরো একটি অপহরণকারী চক্রের ৭সদস্য বিশিষ্ট একটি গ্যাং কে গ্রেপ্তার করেছেন নওগাঁ জেলা পুলিশ।


রোববার (১৩ ডিসেম্বর) নওগাঁ সদর মডেল থানা প্রাঙ্গণে নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া বিপিএম এক সংবাদ সম্মেলনে মাধ্যমে গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের অপরাধের ঘটনা বিস্তারিত তুলে ধরেন।
গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা হলেন, ১। মোছাঃ বুলবুলি (২৩) পিতা-মোঃ বুলু, সং- সরস্বতীপুর, পুকুরপাড়া,আক্কেলপুর, জয়পুরহাট। ২। মোঃ বাহাদুর শেখ (৩৮) পিতা- মোঃ ইউসুফ শেখ, সাং মধুশুরনই, আত্রাই, নওগাঁ, ৩। মোঃ ইদ্রিস আলী (৪৫) পিতা মৃত নাসির উদ্দিন, ৪। মোছাঃ মুক্তা (৩৮) স্বামী মোঃ বাহাদুর শেখ উভয় সাং চকবাড়িয়া (বাউস্থা পাড়া), ৫। মোঃ আল আমিন (২২) পিতা আজিজুল হাকিম সাং- কাশিয়া পাড়া, ৬। সোছাঃ মুন্নি বিবি (২৮) স্বামী মোঃ নূরুল ইসলাম, সাং- নবাবের তামু, উভয় থানা আত্রাই ও জেলা নওগাঁ, ৭। মোঃ এনামুল হক (৫০) পিতা মৃত ইসমাইল, সাং- বাচারীগ্রাম (সোনারপাড়া),নওগাঁ।


মোছাঃ বুলবুলি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিভিন্ন লোকজনের সাথে কথা বলে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কৌশলে নিয়ে এসে আটক করে তার ৬জন সহযোগীদের সহযোগীতায় বিবস্ত্র করে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজি ও মুক্তিপণ আদায় করে আসছিলেন।পর্যায়ক্রমে বুলবুলির ফাঁদে পা দেয় নওগাঁর আত্রাই উপজেলার বান্দাইখাড়া এর বাসিন্দা আব্দুল খালেকের ছেলে মোঃ নাসির উদ্দিন (৩০)।
প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১২ ডিসেম্বর বিকেলে বুলবুলি নওগাঁ শহরের বাংগাবাড়িয়া বিহারী কলোনী একটি বাড়িতে দাওয়াতের নাম করে ডেকে নেয় মোঃ নাসির উদ্দিনকে। পরে কৌশলে মোবাইল ফোন কেড়ে নিয়ে ঘরে ঢুকিয়ে তালাবদ্ধ করে বুলবুলি ও তার সঙ্গীরা নাসির উদ্দিনকে বেধড়ক মারধর করে এবং চাকুর সহযোগিতায় ভয়-ভীতি দেখিয়ে স্বজনের কাছ থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ পাঠানোর কথা বলতে বাধ্য করে।


বিষয়টি পুলিশ জানতে পারলে নওগাঁ পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম এর নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোঃ রাকিবুল আক্তার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল আবু সাঈদ, নওগাঁ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ সোহরাওয়ার্দী হোসেন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মু. ফয়সাল বিন আহসান, পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) মোঃ জামিলুর রহমান, এসআই (নিঃ) মোঃ আব্দুল মজিদ, এসআই মোঃ নাজমুল জান্নাত শাহ ও সঙ্গীয় ফোর্সসহ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে নাছির উদ্দিনকে উদ্ধার সহ মুক্তিপণ আদায় কারী ৭ সদস্য বিশিষ্ট গ্যাং গ্রেপ্তার করে।
পরে মোঃ নাসির উদ্দিনের লিখিত অভিযোগে থানায় মামলা হয়। যার মামলা নং- ১৫, তারিখ- ১২/১২/২০২০, ধারা- ৩৪২/৩৮৫/৩০৭/৩২৬/৫০৬/৩৪।


এ বিষয়ে নওগাঁ পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম ঘটনাটির বিস্তারিত বর্ণনার পাশাপাশি বলেন, কোন অপরাধ চক্রকেই মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে দেওয়া যাবে না। যেকোনো অন্যায়ের মুখোমুখি প্রতিবাদ করতে সরকারের নির্দেশনায় পুলিশ সর্বদাই তৎপর। উক্ত অপরাধের বিষয়টি আমি জানতে পারার সাথে সাথেই পুলিশকে নির্দেশনা দেই অপরাধীদের গ্রেফতার করতে। এ গ্যাং এর সকল সদস্যকে আমরা গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। আইন অনুযায়ী তাদের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পূর্ববর্তী খবরকালীগঞ্জে ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে ২ প্রতারক গ্রেপ্তার।
পরবর্তী খবরওয়াশিংটনে গান্ধীর ভাস্কর্য ভাঙচুর

Leave a Reply