প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জেলা বাসীর পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জেলা বাসীর পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়।

 

সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সর্বশেষ স্প্যান স্থাপন করায় কৃষকরত্না প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জেলা বাসীর পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়।

 

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলাদেশ কৃষক লীগ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার আয়োজনে দলীয় কার্যালয় চত্বর থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি মোঃ আব্দুল ওদুদের নেতৃত্বে র‌্যালিটি বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চে সমাবেশে মিলিত হয়।

 

এসময় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ রুহুল আমিন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাকিনা খাতুন পারুল, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট মোঃ আব্দুস সামাদ, জেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক আমানুল্লাহ বাবু, আ.লীগ নেতা ফায়জার রহমান কনক প্রমুখ।

 

উপস্থিত ছিলেন. বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জহুরুল ইসলাম, জেলা কৃষক লীগের সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুল হাকিম, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মুশফিকুর রহমান টিটো প্রমুখ।

 

বক্তারা বলেন, সকল ষড়যন্ত্রকে মোকাবেলা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠতায় আজ পদ্মার সেতুর বাস্তব রূপ লাভ করেছে। সেই সাথে বঙ্গবন্ধুর লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয়েছে। সকল ষড়যন্ত্রকে রুখে দিয়ে পদ্মাসেতুর সর্বশেষ ৪১তম স্প্যান বসানোর ফলে দৃশ্যমান হলো স্বপ্নের পদ্মা সেতু। দেশের মানুষের মাঝে আনন্দের বন্যা বইছে। বক্তারা আরো বলেন, বিএনপি-জামায়াতের সকল ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিবে দেশের জনগণ।

 

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়েছিল এবং ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে বসানো হয়েছিল প্রথম স্প্যান। সেতুর মোট পিলার ৪২টি এবং এতে স্প্যান বসানো হয় ৪১টি। ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে পদ্মা সেতু। সেতুর ওপরের অংশে যানবাহন ও নিচ দিয়ে চলবে ট্রেন। মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড (এমবিইসি) ও নদী শাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন। প্রকল্পের সর্বমোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩০ হাজার ১৯৩ দশমিক ৩৯ কোটি টাকা।

পূর্ববর্তী খবরচ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখালেও টাকা দেবে না ইউটিউব!
পরবর্তী খবরঅ্যাপলের এক হেডফোনের দাম ৪৬ হাজার টাকা

Leave a Reply