প্রেমিকার শ্বশুরবাড়িতে দেখা করতে গিয়ে বেরসিক জনতার হাতে ধরা প্রেমিক

প্রেমিকার শ্বশুরবাড়িতে দেখা করতে গিয়ে বেরসিক জনতার হাতে ধরা পড়ে শ্রীঘরে গেল দুই সন্তানের জনক সাবেক প্রেমিক। বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার রমনা ইউনিয়নে।

জানা গেছে, উপজেলার রমনা ইউনিয়নের তেলিপাড়া খেউনিপাড়া এলাকার এক মেয়ের সঙ্গে খরখরিয়া এলাকার এক যুবকের বিয়ে হয়। তাদের ঘরে দুটি সন্তানও রয়েছে। ওই যুবক জীবিকার তাগিদে ঢাকায় থাকেন।

বৃহস্পতিবার রাতে মেয়েটির সঙ্গে দেখা করতে আসে তার সাবেক প্রেমিক খেউনিপাড়া এলাকার মনছুর আলীর ছেলে মন্টু মিয়া (২৫)। এ সময় স্থানীয় জনতা তাদের দুজনকে ধরে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে রাখে। শুক্রবার সকাল থেকে ওই বাড়িতে পরকীয়ায় ধরা পড়া প্রেমিক যুগলকে দেখতে উৎসুক জনতার ঢল নামে।

বেলা ১১টার দিয়ে স্থানীয় থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ দুজনকে থানায় নিয়ে আসে। পরে মন্টু মিয়াকে জেলহাজতে এবং মেয়েকে বাবার বাড়িতে প্রেরণ করে চিলমারী থানা পুলিশ।

চিলমারী মডেল থানার ওসি মো. আনোয়ারুল ইসলাম জানান, স্থানীয় জনতা ছেলে ও মেয়েকে ধরে রাখায় আমরা তাদের থানায় নিয়ে এসেছি। থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে রাতে বাসায় আসার বিষয়ে সঠিক জবাব দিতে না পারায় মন্টু মিয়াকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

সূত্রঃ যুগান্তর

পূর্ববর্তী খবরবিশ্ববিদ্যালয়ে সিজিপিএ-৪ আউট অব ৪ পাওয়া অসম্ভব কিছু না
পরবর্তী খবরচিকিৎসা শেষে হাসপাতাল থেকে আবার থানায় ইভ্যালির এমডি রাসেল

Leave a Reply