বগুড়ায় বিষপানে নারী পুলিশের আত্মহত্যা; নেপথ্যে প্রেম!

মেহেদী হাসান, শিবগঞ্জ (বগুড়া): বগুড়ার শেরপুরে বিষপা‌নে রহিমা খাতুন (২০) নামে এক নারী প‌লিশ কনস্টেব‌ল মারা গেছেন। বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমার মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এর আ‌গে বেলা সা‌ড়ে ১১টায় ‌তি‌নি বাড়িতেই বিষপানে অসুস্থ হন বলে তার পরিবার জানায়।

নিহত র‌হিমা খাতুন বগুড়ার শেরপুর উপজেলার চন্ডিশ্বর গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে। তি‌নি কক্সবাজার ৮ম আমর্ড ব্যাটালিয়ন পুলিশে (এপিবিএন) কর্মরত ছিলেন।

নিহত র‌হিমার চাচা রুবেল মিয়া জানান, ১০ দিনের ছুটি নিয়ে রহিমা গত ৫ জানুয়ারি শেরপুরে গ্রামের বাড়িতে আসেন। তার সাথে একই ব্যাটালিয়ানে কর্মরত পুলিশ কনস্টেবল হৃদয়ের সাথে রহিমার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমঘটিত বিষয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হওয়ায় এতে অভিমান করে বুধবার বেলা দশটার দিকে পরিবারের কাউকে কিছু না জানিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান।

একপর্যায়ে উপজেলার শাহবন্দেগী ইউনিয়নের হাতিগাড়া এলাকাস্থ স্যাটকম এগ্রো পার্কে (সাবেক সাউদিয়া পার্ক) গিয়ে বিষপান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরবর্তীতে পার্কের মধ্যে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে বেড়াতে যাওয়া লোকজন উদ্ধার করে তাকে শেরপুর হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। কিন্তু  সেখানে অবস্থা অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে রহিমা খাতুন মারা যায়।

ছি‌লিমপুর মে‌ডিকেল ফাঁ‌ড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) শামীম জানান, বিষপানে অসুস্থ অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মে‌ডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই নারী পু‌লিশ কনস্টেবল ভ‌র্তি হয়েছিলেন। সন্ধ্যায় চি‌কিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, নিহত ওই নারী পুলিশ কনস্টেবলের লাশ বগুড়ায় শজিমেক হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। ময়না তদন্তের পর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তবে কী-কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা তদন্তের পরই কেবল বলা সম্ভব হবে। এছাড়া উক্ত ঘটনায় বগুড়া সদর থানা পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান তিনি।# এম.এইচ/ব/সস।

পূর্ববর্তী খবরডুমুরিয়ায় খালেদা জিয়ার মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার দাবিতে গণ-সমাবেশ
পরবর্তী খবর‘সিরিয়াল কিলার’ বাউল সেজে দীর্ঘদিন আত্মগোপনে

Leave a Reply