বশেমুরবিপ্রবিতে বাঁধনের দুইযুগ পূর্তি উদযাপন 

মোঃ পারভেজ হাসান , বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি: কেক কেটে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে দুই যুগ পূর্তি উদযাপন করেছে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) স্বেচ্ছায় রক্তদানের সংগঠন-বাঁধন 

ইউনিট। এবারের প্রতিবাদ্য ছিল “সর্বাত্মক হোক স্বেচ্ছায় রক্তদান, দুই যুগ পূর্তিতে বাঁধনের আহ্বান।” 

এ উপলক্ষে বাঁধন, বশেমুরবিপ্রবি ইউনিটের উদ্যোগে প্রশাসনিক ভবন থেকে বর্ণাঢ্য র‍্যালি নিয়ে বাঁধন চত্বরে শেষ হয়। এরপর উপদেষ্টাদের আলোচনা শেষে কেক কাটা হয়। 

উক্ত অনুষ্ঠানে বাঁধনের উপদেষ্টা  বশেমুরবিপ্রবি প্রক্টর ড.রাজিউর রহমান, মজনুর রশিদ, ইমরান হোসাইন, শামসুল আরেফিন, ফায়েকুজ্জামান টিটু , বশেমুরবিপ্রবি ইউনিটের সভাপতি মো: রাশেদুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক মো: শাহ আলম, এবং সংগঠনের সক্রিয় কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

বাঁধন বশেমুরবিপ্রবি ইউনিটের সভাপতি মোঃ রাশেদুল ইসলাম বলেন, “বাঁধনের দুই যুগ পূর্তিতে সকল সম্মানিত রক্তদাতা, শুভাকাঙ্ক্ষী, বাঁধনকর্মী ওউপদেষ্টামন্ডলীদের জানাই প্রতিষ্ঠাবার্ষিক এর শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। দুই যুগ পূর্তিতে একটাই চাওয়া বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ নিজের রক্তের গ্রুপ জানবে, নিজে রক্ত দিবে, অন্যকে রক্ত দিতে উৎসাহিত করবে। সবাই সচেতন হলে সেদিন আমরা ধন্য হবো।” 

সাধারণ  সম্পাদক মোঃ শাহ আলম বলেন শৈশব, “কৈশোর পেরিয়ে বাঁধন এখন যৌবনে পদার্পণ করেছে। বাঁধনের এই  অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকুক।আমাদের এই প্রচেষ্টা সামাজিক আন্দোলনে রুপ নিয়ে ছড়িয়ে পড়ুক প্রত্যন্ত আঞ্চলে। বাঁধন তার লক্ষ্য ও  উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে এগিয়ে যাক।” 

প্রসঙ্গত, বাঁধন ( স্বেচ্ছায় রক্তদানের সংগঠন ) ১৯৯৭ সালের ২৪ শে অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘একের রক্ত অন্যের জীবন, রক্তই হোক আত্মার বাঁধন’ স্লোগানের মাধ্যমে  যাত্রা  শুরু হয়। বাঁধনের মূল  লক্ষ্য হলো স্বেচ্ছায়  রক্তদানে উদ্বুদ্ধ করা এবং অন্যান্য  সেবা ও সচেতনমূলক কর্মশালার  আয়োজন করে সুস্থ  সমাজ  বিনির্মানে  সামাজিক  আন্দোলন গড়ে তোলা।

পূর্ববর্তী খবরদুই মাসে ৫ জবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা, শিক্ষার্থীদের জন্য  মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক কমিটি গঠন
পরবর্তী খবরপাবনার এক রাস্তায় বাবাকে ফেলে গেল সন্তান

Leave a Reply