বিএনপির সভা-সমাবেশ ঠেকাতেই নতুন বিধিনিষেধ

রুহুল কবির রিজভী (ছবি :- সংগৃহীত)

শুধুমাত্র বিএনপির সভা-সমাবেশ ঠেকাতেই সরকার দেশে নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে কি-না তা নিয়ে জনগণের মধ্যে প্রশ্ন ও সংশয় রয়েছে বলে দাবি করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী।

তিনি বলেন, নিষেধাজ্ঞা দিয়ে সরকারবিরোধী আন্দোলন ঠেকানো যাবে না। আন্দোলন দমানোর জন্য নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা রাজনৈতিক মামলায় ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে সাজা দেওয়া হচ্ছে। আগামী নির্বাচন সামনে রেখে সরকার এ ধরনের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

এখন পর্যন্ত দেশের মাত্র ৩০ শতাংশ মানুষকে দুই ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, অথচ করোনা মহামারি শুরু হয়েছে প্রায় দুই বছর। যদি শুরুতেই সরকার উদ্যোগ নিতো তাহলে এরইমধ্যে প্রায় শতভাগ করোনা টিকা দেওয়া সম্ভব হতো। দক্ষিণ এশিয়ার অনেক দেশই ৬০ ভাগের ওপরে টিকাদান সম্পন্ন করেছে।

রিজভী আরও বলেন, টিকা ও করোনা সামগ্রী নিয়ে কেলেঙ্কারি ছাড়া আর কিছু দিতে পারেনি সরকার। সঠিক ব্যবস্থা নিতে পারলে দেশে করোনার সংক্রমণ বাড়ত না।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিলকিস জাহান শিরিন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক বেলাল আহমেদ ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আকরামুল হাসান মিন্টু প্রমুখ।

পূর্ববর্তী খবরক্রিস মরিস আর ক্রিকেট খেলবেন না
পরবর্তী খবরট্রাম্পকে অপহরণ-হত্যার হুমকি, ৭২ বছরের বৃদ্ধ আটক

Leave a Reply