30 C
Dhaka
Saturday, November 26, 2022

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাব অযৌক্তিক ও অগ্রহণযোগ্য: ন্যাপ

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাবকে অযৌক্তিক, অগণতান্ত্রিক এবং অগ্রগণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

তারা বলেছেন, দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত ঊর্ধ্বগতি জনগণের জীবনে নাভিশ্বাস তুলেছে। সরকার বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে চরমভাবে যখন ব্যর্থ, তখনই দেশবাসী বিস্ময়ের সঙ্গে লক্ষ্য করছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের শুনানিতে কারিগরি মূল্যায়ন কমিটি পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের মূল্য ৫৮ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে, যা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির অনিবার্যভাবে বিদ্যুতের খুচরা মূল্যবৃদ্ধির যুক্তি তৈরি করবে এবং তা বহুগুনিতক হারে সব পণ্যের দাম বাড়াবে।

শনিবার (২১ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় এসব কথা বলেন।

ন্যাপ নেতারা বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশে এক অরাজক পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে চলছে। বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাব গণবিরোধী যা মোটেও গ্রহণযোগ্য নয়। সরকার চাইলে আরও কম দামে সাশ্রয় মূল্যে শতভাগ বিদ্যুৎ জনগণকে দিতে পারে সে উদ্যোগ কিভাবে নেবে সেটি সরকারের বিবেচনা করা উচিত।

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন কর্তৃক বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির তৎপরতার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে ন্যাপ নেতারা বলেন, যখন প্রধানমন্ত্রী সবাইকে মিতব্যয়ী হওয়ার পরামর্শ দেন তখন দেখা যাচ্ছে সরকারি বা রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলো তা পরিহার করে ভুল সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে দুর্নীতিগ্রস্ত এবং অলাভজনক প্রকল্প নিয়ে জনগণের দুর্ভোগ সৃষ্টি করতে ব্যস্ত।

তারা বলেন, সরকার ইতোমধ্যেই বিদ্যুৎ খাতকে লুটপাটের স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছে। নিজেদের পোষ্য লোকদের সুবিধা দেওয়ার জন্য বারবার মেয়াদ বাড়িয়ে কুইক রেন্টাল কোম্পানিগুলোকে বসিয়ে রেখে ক্যাপাসিটি চার্জ দিচ্ছে। এই অব্যাহত লুটপাটের টাকা জোগান দিতেই উপর্যুপরি বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি করছে। মানুষের ক্রয়ক্ষমতার তুলনায় ভীষণ ব্যয়বহুল বিদ্যুৎ উৎপাদন সাধারণ মানুষের জীবনে নাভিশ্বাস তুলছে।

নেতৃদ্বয় আরও বলেন, ভুল সিদ্ধান্তের কারণে সরকারের যে লক্ষ্য শতভাগ বিদ্যুতায়ন তা থেকে বিমুখ হবে সাধারণ জনগণ। সেই সঙ্গে শিল্প উৎপাদন এবং সাধারণ নাগরিকদের পরিবহন অটোরিকশা, বিদ্যুতের রিকশা এবং আগামীতে বিদ্যুতচালিত যানবাহনের ব্যয় কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা অনুমান করা সম্ভব না।

নেতারা বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির তৎপরতা অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানান। একইসঙ্গে তারা এমন সিদ্ধান্তকে গণবিরোধী আখ্যা দিয়ে গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

লেখক থেকে আরো