ব্যর্থতা ঢাকতে সরকার অমানবিক-নিষ্ঠুরতার আশ্রয় নিচ্ছে: ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

দেশ পরিচালনায় সবক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী কর্তৃত্ববাদী সরকার দেশকে এক ভয়াবহ অরাজকতার অন্ধকার গহ্বরে ঠেলে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, ‘করোনা মহামারিসহ রাষ্ট্র পরিচালনায় সবক্ষেত্রে ব্যর্থতা ঢাকতেই সরকার এ ধরনের অমানবিক ও নিষ্ঠুরতার আশ্রয় নিয়ে জনগণের দৃষ্টিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে।’

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সমগ্র দেশটাই এখন বন্দিশালায় পরিণত হয়েছে। করোনা মহামারির সময়েও বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার এবং তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও কাল্পনিক কাহিনী বানিয়ে মামলা দায়েরের ঘটনা নিত্যনৈমিত্তিক হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘ছাত্রদলের ঢাকা জেলা দক্ষিণ শাখার সদস্যসচিব পারভেজ হোসেন পাভেল মোল্লা এবং বাজিতপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীসভায় পুলিশি হামলার পর সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রণি ভূঁইয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তফা আলী জাহানগীর, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আফজালকে গ্রেফতার এবং থানা বিএনপির সদস্যসচিব মনির হোসেনসহ ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দলের ৩৫ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বানোয়াট মামলা দায়ের ও নিকলী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীসভা বানচাল করা বর্তমান জনবিচ্ছিন্ন সরকারের ধারাবাহিক অপকর্মেরই অংশ।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এটি গণবিরোধী সরকারের চলমান দমন নীতিরই ধারাবাহিকতা। প্রতিটি মুহূর্তই আতঙ্কে রয়েছে বলেই বিরোধীদলের যেকোনো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি বানচালে সরকার এখন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘দেশে বর্তমানে যে দুঃশাসন কায়েম হয়েছে, তাতে রাজনীতি করার গণতান্ত্রিক অধিকারকে পদদলিত করা হচ্ছে। আজ্ঞাবাহী প্রশাসন যন্ত্রকে অপব্যবহার করে ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী দেশে কর্তৃত্ববাদী শাসনের মাধ্যমে জনগণকে জিম্মি করে ফেলেছে। কিন্তু এসব অপকর্মের মাধ্যমে জনগণকে ভয়ভীতি দেখিয়ে কোনো লাভ হবে না। জনগণ এখন সরকারের সব কুকর্ম ও নিষ্ঠুর শাসন অবসানে ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে।’

বিএনপি মহাসচিব বিবৃতিতে উল্লিখিত নেতাদের নামে বানোয়াট ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং অবিলম্বে গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।

পূর্ববর্তী খবররাজশাহীতে ৮৬ কোটি ৮৫ লাখ টাকার আম বিক্রি
পরবর্তী খবরবিএনপি গৃহকোণে বসে নসিহত করছে

Leave a Reply