মোহনপুরে ৬ ইউপিতে ২৩ চেয়ারম্যান সহ ২৮৪ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই দিন ছিল  বৃহস্পতিবার। যাচাই-বাছাই শেষে চেয়ারম্যান পদে ২৩ জন, সংরক্ষিত আসনে ৬০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ২০১ জন, অর্থাৎ চেয়ারম্যানসহ মোট ২৮৪ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে।

দুই চেয়ারম্যান ও তিন সাধারণ সদস্য প্রার্থীর মনোনয়নপত্র ঋন খেলাপির দায়ে প্রার্থীতা বাতিল করা হয়েছে। মোহনপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ জয়নুল আবেদীন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ধুরইল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। তারা হচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী মোঃ দেলোয়ার হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ কাজিম উদ্দিন ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী খন্দকার মোঃ রবিউল ইসলাম। সংরক্ষিত তিন আসনের পদে ১০ জন ও সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে ৩৫ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। এই ইউনিয়নের একজন সাধারণ সদস্য প্রার্থীর ঋন খেলাপির দায়ে বাতিল করা হয়েছে। 

ঘাসিগ্রাম ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। তিনি হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীতনৌকার প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ আজাহারুল ইসলাম বাবলু। দুই স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আফজাল হোসেন বকুল ও তাজরুল হক দেওয়ানের প্রার্থীতা ঋন খেলাপির দায়ে বাতিল করা হয়েছে। এই দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী তাদের  প্রার্থীতা ফিরে পেতে আপিল করবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। সংরক্ষিত তিন আসনে ১১ জন এবং ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য ২৯ জন প্রার্থীর মনোনয়নপ্রত্র বৈধ হয়েছে।

রায়ঘাটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ছয়জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। এরা হচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার  প্রার্থী বাবলু হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী রুস্তম আলী, মোহাম্মাদ দুলাল হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী আক্কাস আলী সরদার, আব্দুল মান্নান ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শ্রী সুরঞ্জিত কুমার সরকার।  সংরক্ষিত তিন আসনে ৬ জন এবং ৯টি ওয়ার্ডে ২৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপ্রত্র বৈধ হয়েছে। 

মৌগাছি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে চারজন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। এরা হচ্ছেন  আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ আল আমিন বিশ্বাস, স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল হোসেন খান, আবুল হোসেন ও জাতীয় পাটি থেকে হারেস আলী। সংরক্ষিত তিন আসনে ১২ জন এবং ৯টি ওয়ার্ডে ৩১ জন প্রার্থীর মনোনয়নপ্রত্র বৈধ হয়েছে। এই ইউনিয়নে ৩ নং ওয়ার্ডে কোন প্রার্থী মনোনয়নপ্রত্র দাখিল না করায় মো. নাসির উদ্দীন বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। 

বাকশিমইল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। এরা হচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী অধ্যাপক মোঃ আব্দুল মান্নান, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ আল মোমিন শাহ্‌ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুব আর রশিদ। সংরক্ষিত তিন আসনে ১১ জন এবং ৯টি ওয়ার্ডে ৪০ জন প্রার্থীর মনোনয়নপ্রত্র বৈধ হয়েছে। এই ইউনিয়নের দুই সাধারণ সদস্য প্রার্থীর মনোনয়নপ্রত্র ঋন খেলাপির দায়ে বাতিল করা হয়েছে। 

জাহানাবাদ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ছয়জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে।  এরা হচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী হযরত আলী, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান এমাজ উদ্দিন খান, এসএম মতিউর রহমান, আব্দুল লতিফ, শাহাবুদ্দিন ও জাতীয় পাটি থেকে দেলোয়ার হোসেন। সংরক্ষিত তিন আসনে ১০ জন এবং ৯টি ওয়ার্ডে ৩৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নত্র বৈধ হয়েছে। 

মোহনপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. জয়নুল আবেদীন বলেন, তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই দিন ছিল বৃহস্পতিবার। ৫ নভেম্বর  প্রার্থীরা আপিল করতে পারবেন। প্রত্যাহারের শেষ দিন ১১ নভেম্বর। আর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৮ নভেম্বর।

পূর্ববর্তী খবরমোবাইল নিয়ে ক্লাসে ছাত্র, থাপ্পড় মেরে কানের পর্দা ফাটালেন শিক্ষক
পরবর্তী খবরঈশ্বরদীতে ইউপি নির্বাচনে ১১ প্রার্থীর মনোনয়ন অবৈধ ঘোষনা

Leave a Reply