যশোরে তৃতীয় লিঙ্গের একজনকে হত্যা

যশোরে লাবনী (৩৫) নামে তৃতীয় লিঙ্গের একজনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার (৮ জানুয়ারি) সকাল ৮টায় যশোর-ছুটিপুর সড়কের হালসা সেতুর কাছে এই ঘটনা ঘটে। লাবনীর বাড়ি যশোর শহরের বেজপাড়ায়। তার বাবার নাম করিম মিস্ত্রি।

প্রত্যক্ষদর্শী নাজমা ও সেলিনা জানান, লাবনীসহ তারা তিন জন যশোর শহরের ধর্মতলায় হিজড়া সরদার পাঞ্জেরীর অধীনে ছিলেন। মতের অমিল হলে তারা আলাদা হয়ে যান। আজ সকালে তিন জন গ্রামে যান। হালসা সেতুর কাছে পৌঁছালে মুখে মাস্ক পরা দুই জন এসে লাবনীর গলায় ছুরিকাঘাত করে। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে যান তিনি। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় লাবনীকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আহমেদ তারেক শামস বলেন, গুরুতর অবস্থায় লাবনীকে হাসপাতালে আনা হয়। অপারেশন থিয়েটারে পাঠানোর পরপরই মারা যান। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয়েছে বলে জানান তিনি।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম ঘটনার জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। কী কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে তা উদ্ঘাটনে কাজ চলছে।

পূর্ববর্তী খবরনিয়োগ বাণিজ্যে জড়িত শিক্ষক ও কর্মচারীর অপসারনের দাবিতে যবিপ্রবিতে মানববন্ধন
পরবর্তী খবরসাকিবের দলে খেলবেন ব্রাভোও

Leave a Reply