যুবরাজের বিশেষ বাহিনী বিলুপ্ত করতে সৌদিকে চাপ যুক্তরাষ্ট্রের।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইজ

সৌদি আরবের রাজপরিবারের কঠোর সমালোচক হিসেবে পরিচিত সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যায় দেশটির যুবরাজ জড়িত বলে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনে ওঠে আসায় প্রচণ্ড চাপে আছে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।

 

আন্তর্জাতিক চাপের মুখে এখন ভোল পাল্টাতে শুরু করেছে মার্কিন প্রশাসনও। এত দিন সৌদি যুবরাজকে রক্ষা করে এলেও এখন ভিন্ন সুরে কথা বলছে জো বাইডেনের প্রশাসন। খবর আনাদোলুর।

 

 

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইজ সোমবার এক বিবৃতিতে সৌদি যুবরাজের বিশেষ বাহিনী বিলুপ্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন।

 

যুবরাজের সুরক্ষায় কাজ করে অভিজাত বাহিনী র‌্যাপিড ইন্টারভেনশন ফোর্স। তাদের জবাবদিহিও একমাত্র যুবরাজের কাছে।

 

সম্প্রতি প্রকাশিত মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএর প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ওয়াশিংটন পোস্টের কলাম লেখক ও সৌদির নির্বাসিত সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করতে ইস্তাম্বুল কনস্যুলেটে পাঠানো ঘাতক টিমের ১৫ সদস্যের মধ্যে সৌদি যুবরাজের বিশেষ বাহিনীর সাতজন ছিলেন।

 

ধারণা করেছিল, সৌদি যুবরাজের নির্দেশে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। কিন্তু তখনকার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন কখনই তার জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেনি।

 

মানুষ খুনে অভিযুক্ত কোনের বাহিনীকে রাষ্ট্রীয় কাজে নিয়োজিত করা আইনসিদ্ধ নয় বলে জানায় মার্কিন প্রশাসন।এ কারণে সৌদি আরককে এই বাহিনী বাতিলের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।।।

 

সূত্র:- যুগান্তর।

পূর্ববর্তী খবররাবিতে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা
পরবর্তী খবরকুবি ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারিতে আহত ২

Leave a Reply