31 C
Dhaka
Thursday, September 29, 2022

রাঙ্গামাটিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৬৯ দোকান পুড়ে ছাই; ক্ষয়ক্ষতি ৪০ কোটি টাকা

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধিঃ রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলার দুরছড়ি বাজারে আগুন লেগে বহু দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আগুনে ক্ষয় ক্ষতির পরিমান অনেক। আগুন নেভাতে গিয়ে অনেকে আহত ও হয়েছে। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উপজেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়। 

আজ বৃহস্পতিবার, ২১ জুলাই সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মিলন দে’র তেল-গ্যাসের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বিল্টু চাকমা।

চেয়ারম্যান জনাব বিল্টু চাকমা বলেন  দোকানদার মিলন দে গ্যাসের চুলা মেরামত করে আগুন জ্বালিয়ে পরীক্ষা করার সময় পাশে থাকা অকটেনে আগুন লেগে চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। যার কারনে বাজারটি তেল ও গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়।  ঘটনার পর ব্যবসায়ী মিলন দে পালিয়ে যায়।আগুনের সংবাদ পাওয়া পর মারিশ্যা জোনের বিজিবি ও দুরছড়ি সেনাবাহিনী ক্যাম্পের শতাধিক সদস্য ও স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।  পার্শবর্তী  উপজেলা দীঘিনালা থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ও আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। প্রায় ৩ ঘন্টার চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। 

ঘটনার পরপরই খাগড়াছড়ি ২০৩ রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম ও বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুমানা আক্তার পুড়ে যাওয়া বাজার পরিদর্শন করেন।

এ সময় রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেন এবং সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে দুরছড়ি বাজারে একটি ফায়ার পয়েন্ট স্থাপন করা হবে বলে ঘোষনা দেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুমানা আক্তার বলেন, আগুনে কম পক্ষে ৬৯টি দোকান পুড়ে গেছে। ‘ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরি করে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে সহায়তা করা হবে বলে জানান।

এদিকে, আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের দাবী প্রায় ৪০ কোটি টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

খাগড়াছড়ি ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক সাকরিয়া হায়দার বলেন, ‘আমরা কাজ শেষে তদন্তের মাধ্যমে আগুনের বিস্তারিত কারণ জানাতে পারবো।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

লেখক থেকে আরো