31 C
Dhaka
Thursday, September 29, 2022

রাজশাহীতে বেশি দামেও মিলছে না চার্জার ফ্যান

আষাঢ়েও বৃষ্টিহীন বরেন্দ্র অঞ্চল খ্যাত রাজশাহী। ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন। সেই সঙ্গে যুক্ত হয়েছে লোডশেডিং। দুর্ভোগ ঘোচাতে সোলার কিংবা চার্জার ফ্যানের দিকে ঝুঁকছে লোকজন।

কিন্তু এখানেও পিছু ছাড়ছে না দুঃসংবাদ। সুযোগ বুঝেই এসব ফ্যানের দাম বাড়িয়েছেন বিক্রেতারা। এখন বাড়তি দামেও মিলছে না  এসব ধরনের ফ্যান। মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) নগরের বিভিন্ন এলাকার ইলেকট্রনিক্স মার্কেট ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

বিক্রেতারা বলছেন, ঈদের আগে থেকেই সোলার ও চার্জার ফ্যানের চাহিদা বেড়েছে। তখন থেকেই এসব ফ্যান রকমভেদে ২০০ টাকা থেকে হাজার টাকা বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছিল। কিন্তু এখন মজুত শেষ। চাহিদা মাফিক সোলার কিংবা চার্জার ফ্যান সরবরাহ মিলছে না। ফলে ফলে ক্রেতাদের তা দেওয়া যাচ্ছে না।

ফ্যান বাদেও চার্জার টেবিল ল্যাম্প ও রিচার্জেবল বাল্বসহ অন্যান্য গৃহস্থালি পণ্যেরও চাহিদা বেড়েছে গত কয়েকদিনে। এসব পণ্যেরও দাম বেড়েছে অন্তত ১০০ টাকা।

তবে বাড়তি দামে পণ্য বিক্রির সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক হাসান-আল-মারুফ। মঙ্গলবার নগরীর বিভিন্ন এলাকার ইলেকট্রনিক্স মার্কেটে বাজার তদারকিও করেছেন তিনি।

হাসান-আল-মারুফ বলেন, লোডশেডিংয়ে অসাধু ব্যবসায়ীরা চার্জার ফ্যান বা চার্জার জিনিসপত্রের দাম বাড়াতে পারেন—বিষয়টি মাথায় রেখেই তারা বাজার তদারকিতে নামেন। কিন্তু তেমন অনিয়ম চোখে পড়েনি।

ব্যবসায়ীরা যাতে এসব পণ্যের দাম না বাড়ান— সেজন্য সতর্ক করা হয়েছে। অযৌক্তিক ও অস্বাভা‌বিক মূ‌ল্যে বিক্রির প্রমাণ পাওয়া গে‌লে ক‌ঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

লেখক থেকে আরো