রাবিপ্রবিতে দ্বীপংকর তালুকদার ভবন উদ্বোধন

পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন পার্বত্য জেলার একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় “রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়”৷ যা প্রতিষ্ঠার পিছনে রয়েছে অনেক করুন ইতিহাস৷ ২০০১ সালের মধ্য থেকে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কাজ শুরু করার কথা থাকলেও সেই সময়ে বিএনপি ক্ষমতায় থাকার কারণে তা বাতিল করে নোয়াখালীতে স্থাপন করে৷

তারপর ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগের হাত ধরে শুরু হয় প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম এবং স্থাপনার কাজ৷ কিন্তু বিভিন্ন বিরোধী দলীয় শক্তি ও আঞ্চলিক দলসমূহের বিরোধিতার কারণে আওয়ামী লীগের পেরোতে হয়েছে অনেক ঘাত-প্রতিঘাত৷ সেই ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে যাওয়ার মহানায়ক ছিলেন রাঙামাটি জেলার ২৯৯ নং সংসদ আসনের সদস্য পাহাড়ি -বাঙালি ঐক্যের প্রতীক জননেতা দ্বীপংকর তালুকদার এমপি মহোদয়৷ সচেতন সাধারণ মানুষের সহযোগিতা এবং সমর্থন নিয়ে এখন সফল এই মহানায়ক৷ বর্তমানে রাঙামাটি বিশ্ববিদ্যালয়ে দুইটি একাডেমিক ভবন রয়েছে৷

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতাকর্মীদের আবেদন ও প্রশাসনের সমর্থন ও সহযোগিতায় তার মধ্যে একটি ” দ্বীপংকর তালুকদার ভবন” ও অপরটি প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন সমস্যার মধ্য দিয়ে ভিসি এর দায়িত্ব পালন করে আসা ড. প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমার নামে “ড. প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমা ভবন” এর অনুমোদন হয়৷

তার মধ্যে আজ “দ্বীপংকর তালুকদার ভবন” নিজের হাতে উদ্বোধন করেন জননেতা দ্বীপংকর তালুকদার এমপি মহোদয়৷ অপরটি শীঘ্রই উদ্বোধন হবে বলে জানানো হয়৷ এসময় দ্বীপংকর তালুকদার মহোদয় তার বক্তব্যের মধ্যে বলেন বর্তমানে এই বিশ্ববিদ্যালয় এর এলাকাটি হচ্ছে তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ  এবং দামী জায়গা৷ বর্তমানে এখানে বিদ্যুৎ, রাস্তা, পৌরসভা এর সেবা থেকে শুরু করে সবকিছুর সেবা পাচ্ছে স্থানীয় মানুষ৷ যা তারা বিগত ২০ বছর আগেও ঘুমের স্বপ্ন বলে মনে করতো৷ বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে লালন করে এই বিশ্ববিদ্যালয় এতদূর এসেছে এবং ভবিষ্যতেও অনেকদূর এগিয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেন তিনি৷

পূর্ববর্তী খবরকরোনা শনাক্তের হার বেড়ে ৩১.২৯, মৃত্যু ১৪
পরবর্তী খবরজবি বাঁধনের সভাপতি মাহিয়ান, সাধারণ সম্পাদক রাসেল

Leave a Reply