শীতের তীব্রতায় কাঁপছে নওগাঁ, ঘনকুয়াশায় যেন মেঘের রাজ্য।

নাদিম আহমেদ অনিক, স্টাফ রিপোর্টার: উত্তরাঞ্চলের বৃহত্তর জেলা নওগাঁয় বেড়েছে শীতের তীব্রতা। ঘনকুয়াশায় যেন মেঘের রাজ্য শহরের পথঘাট। আর হাড় কাঁপানো শীতে একেবারেই বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। প্রায় ১সপ্তাহ দেখা নেই সূর্যের। আবার মাঝে মধ্যে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি শীতের তীব্রতাকে বাড়িয়েছে দ্বিগুন।

শীতের তীব্রতায় কাঁপছে নওগাঁ, ঘনকুয়াশায় যেন মেঘের রাজ্য।

গত কয়েকদিন থেকেই আকাশ মেঘলা। সঙ্গে আছে ঘন কুয়াশা। সকাল থেকে দিনের কোন বেলাতে মিলছে না সূর্যের দেখা। এতে বেড়েছে শীতের প্রকোপ। সন্ধ্যা নামলে পথঘাট, হাট-বাজার জনশূন্য হয়ে পড়ে। রাতে তাপমাত্রা আরও কমে যায়। এতে স্বাভাবিক কাজ কর্ম বাধাগ্রস্থ হওয়ায় বিপাকে পড়তে হচ্ছে দিন এনে দিন খাওয়া কর্মজীবী ও শ্রমজীবী মানুষদের। সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়ছেন বয়স্ক ও শিশুরা। অনেকেই খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে। নিম্ন আয়ের মানুষরা গরম কাপড়ের জন্য ছুটছেন ফুটপাথের দোকানগুলোতে।

জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, একটু গরমের উষ্ণনতার জন্য বয়স্করা কাঁথা বা কম্বল জড়িয়ে গুটিসুটি হয়ে বসে আছেন। গবাদি পশুর গায়ে চট জড়িয়ে রেখেছেন। তাদের গরম পানি খাওয়াতে দেখা গেছে। স্থানীয় হাসপাতালে বাড়ছে শিশু ও বয়স্ক রোগীর সংখ্যা। এদের মধ্যে অধিকাংশই আমাশয়, নিউমোনিয়া, ডায়ারিয়া ও সর্দি জ্বড়ে আক্রান্ত।

শীতের তীব্রতায় কাঁপছে নওগাঁ, ঘনকুয়াশায় যেন মেঘের রাজ্য।

জেলা শহরের বালুডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড মহল্লার বাসিন্দা আব্দুল জব্বার, গনি, সাখাওয়াত হোসেনসহ অনেকেই জানান, সন্ধ্যার পর পরেই কুয়াশা ও ঠান্ডা বাতাস অনুভূত হয়। এছাড়াও সকাল থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত দুর-পাল্লার যানবাহনসহ ছোট-বড় সকল যানবাহন আলো জ্বালিয়ে চলাচল করতে দেখা গেছে।

নওগাঁর বদলগাছি আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায় সোমবার জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে দিনের তাপমাত্রা কিছুটা বৃদ্ধি পেতে পারে। নওগাঁ ও তার আশেপাশের অঞ্চলগুলো আরো কয়েক দিন ঘনকুয়াশায় ঢাকা থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

পূর্ববর্তী খবরসরিষা ফুলের রাজ্যে একদিন।
পরবর্তী খবরপাকিস্তানে বিরোধী দলের আলটিমেটাম প্রত্যাখ্যান, ‘আন্দোলন কবরে গেছে

Leave a Reply