সহিংস বিক্ষোভ প্যারিসে!

Photo collection: - Daily Inqilab

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:- ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর তৈরি নিরাপত্তা আইনের বিরোধী বিক্ষোভে ফেটে পড়েছে প্যারিস। আন্দোলনকারীরা শহরের বিভিন্ন এলাকায় যানবাহনে আগুন দিয়েছে। মুখ ঢাকা বেশ কিছু বিক্ষোভকারীরা বেশকিছু দোকান ভাঙচুর করে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস প্রয়োগ করে। খবরে বলা হয়, পুলিশের সহিংসতা এবং নিরাপত্তা আইনের প্রতিবাদে প্যারিসজুড়ে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। শনিবার বিক্ষোভকারীরা দাঙ্গা পুলিশের দিকে পটকা ছুড়েছে, দোকানের জানালা ভাঙচুর, গাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং ব্যারিকেড পুড়িয়ে দিয়েছে। জবাবে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে টিয়ার গ্যাস ছুড়েছে। রয়টার্স জানিয়েছে, রাজধানীতে কয়েক হাজার মানুষ শান্তিপ‚র্ণভাবে প্রতিবাদ মিছিল করছিল। এমন সময় মুখ ঢাকা ও কালো পোশাক পরা একদল বিক্ষোভকারী দাঙ্গা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এরপর শুরু হয় সংঘর্ষ। বিতর্কিত বিলটিতে বলা হয়েছে, ‘শারীরিক কিংবা মানসিকভাবে’ ক্ষতিগ্রস্ত করার উদ্দেশ্যে দায়িত্বপালনরত কোনো পুলিশ সদস্যের ছবি প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ বলে গণ্য হবে। ওই অনুচ্ছেদে আরও বলা হয়েছে, এ ধরনের অপরাধের প্রমাণ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সর্বাধিক এক বছরের কারাদন্ড এবং ৫৪ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা করা হবে। প্রস্তাবিত আইনের সমর্থকেরা বলছেন, বিলটি পাস হলে তা পুলিশকে হয়রানি এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নাজেহাল হওয়া থেকে সুরক্ষা দেবে। বিরোধীদের দাবি, পুলিশের কর্মকান্ডের ছবি তোলা বা ভিডিও ধারণ করতে না দিলে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং নাগরিক অধিকার লঙ্ঘিত হবে। কারণ ফ্রান্সের পুলিশের বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযোগ রয়েছে। এর আগে কয়েক হাজার মানুষ শান্তিপ‚র্ণভাবে বিক্ষোভ করেছিল।

এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীদের একটি অংশের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বেঁধে যায়। বিক্ষোভকারীদের অধিকাংশ কালো পোশাক পরিহিত ছিল এবং তাদের মুখ ঢাকা ছিল। এদের কেউ কেউ রাস্তার পাথর ভাঙতে হাতুড়ি ব্যবহার করেছে। নভেম্বরে বেশ কয়েক জন পুলিশ সদস্য কৃষ্ণাঙ্গ সঙ্গীত পরিচালক মিশেল জেকলারকে প্রহার করেন সম্প্রতি সেই নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষোভ শুরু হয়। এরই মধ্যে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর নতুন নিরাপত্তা নীতি আরও ক্ষোভের সঞ্চার করে। রয়টার্স, ইনকিলাব।

পূর্ববর্তী খবরটাকা দিলেই মিলছে ছাত্রদলের পদ ?
পরবর্তী খবরমাহমুদউল্লাহ-সাকিবদের খুলনায় সঙ্গী এমপি মাশরাফিও !

Leave a Reply