চাঁপাইনবাবগঞ্জ একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ৮৩ জন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় নতুন করে  ৮৩ জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জে করোনা চিকিৎসাধিন মোট রোগী ২০৭ জন। মোট করোনা রোগী ১২২৭ জন। সুস্থ হয়েছেন ১০২০ জন। এখন পর্যন্ত জেলায় করোনায় মারা গেছে মোট ২৩ জন। তবুও জেলায় কেউ মানছেন না স্বাস্থ্যবিধির।

এদিকে সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে শনিবার ভারত থেকে আরও ২৩ জন বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। এ নিয়ে এ বন্দর দিয়ে শনিবার বিকেল পর্যন্ত ৬০ জন বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। এ ৬০ জনের মধ্যে একজনের করোনা সনাক্ত হয়েছে।সনাক্ত হওয়া ব্যক্তি আব্দুস সাত্তার। তিনি রাজশাহী সদরের বাসিন্দা। ওই যাত্রীর করোনা ভাইরাস ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। ২২ মে শনিবার করা টেস্টে এ রেজাল্ট আসে।

তিনি গত ১৯ মে ভারত থেকে সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশের পর সোনামসজিদ জেলা পরিষদের ডাক বাংলোতে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেনটাইনে অবস্থান করছেন। ভারত ফেরতদের জেলা শহরের আবাসিক হোটেল আল নাহিদে ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, সোনামসজিদ দিয়ে শনিবার (২২ মে) বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ২৩ জন বাংলাদেশি ভারত থেকে বাংলাদেশে ফিরেছে। ভারত ফেরতরা সবাই করোনার নেগেটিভ সনদ আনার পরও গত ১৯ মে ভারত ফেরত একজনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। তিনি আরও জানান, ভারত ফেরত ৩৭ জনের করোনা টেষ্ট করা হয়েছে। পাশাপাশি এদের নমুনায় ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট আছে কিনা তা নিশ্চিত হতে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। সকলকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান তিনি ছেলে

পূর্ববর্তী খবরআবারও বাড়ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি
পরবর্তী খবরপবিপ্রবি ডিভিএম শেষ বর্ষের শিক্ষার্থীদের সুইসাইড এটেম্পটের হুমকি

Leave a Reply